1. [email protected] : editor :
বৃহস্পতিবার, ০৮ ডিসেম্বর ২০২২, ১১:০৮ পূর্বাহ্ন
শিরোনামঃ
২০২৪ সালের জানুয়ারির ১লা সপ্তাহে অনুষ্ঠেয় পরবর্তী নির্বাচনে নৌকায় ভোট চেয়েছেন প্রধানমন্ত্রী ১১ ঘণ্টা গ্যাস থাকবে না রাজধানীর যেসব এলাকায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে ‘গ্লোবাল অ্যাম্বাসেডর ফর ডায়াবেটিস’ উপাধিতে ভূষিত সোশ্যাল মিডিয়ায় আওয়ামী লীগ বিরোধী অপপ্রচারের যথাযথ জবাব দিতে হবে : ছাত্রলীগকে প্রধানমন্ত্রী ‘জয় বাংলা’ স্লোগান দিয়ে সম্মেলনে আসছেন নেতাকর্মীরা গরিবের জন্য ইনসুলিন সুবিধা নিশ্চিত করতে সম্মিলিত প্রচেষ্টার ওপর গুরুত্বারোপ প্রধানমন্ত্রীর হোসেন শহীদ সোহরাওয়ার্দীর ৫৯তম মৃত্যুবার্ষিকী আজ ভারতের বিপক্ষে ঐতিহাসিক জয় বাংলাদেশের জনসভায় আজ কী বার্তা দেবেন প্রধানমন্ত্রী মেসির মাইলফলকের ম্যাচ জিতে কোয়াটার্র ফাইনালে আর্জেন্টিনা

বিশ্ব কিডনি দিবস

দৈনিক সময়ের সংবাদ অনলাইন
  • আপডেট : বৃহস্পতিবার, ১০ মার্চ, ২০২২
  • ১৭৪ দেখা হয়েছে

ইন্টারন্যাশনাল সোসাইটি অব নেফ্রোলজি এবং ইন্টারন্যাশনাল ফেডারেশন অব কিডনি ফাউন্ডেশনস ২০০৬ সাল থেকে মার্চের দ্বিতীয় বৃহস্পতিবার (১০ মার্চ) ‘বিশ্ব কিডনি দিবস’ হিসেবে ঘোষণা করেছে। দিবসটির উদ্দেশ্য হলো কিডনির অসুখ নিয়ে সবার মধ্যে সচেতনতা বৃদ্ধি করা।

কিডনি অনাবশ্যক দ্রব্য বা পদার্থ মূত্র হিসেবে শরীর থেকে বের করে রক্তের পরিশোধন করে এবং শরীরে ক্ষার এবং অম্লের ভারসাম্য বজায় রাখে। এভাবে কিডনি শরীরকে স্বচ্ছ এবং সুস্থ রাখে। শরীর থেকে বর্জ্য বের করা ছাড়াও রক্ত তৈরি করা, হাড় শক্তিশালী করার মতো আরও অনেক গুরুত্বপূর্ণ কাজ করে আমাদের কিডনি। তাই শরীরবৃত্তীয় প্রক্রিয়াকে সচল রাখতে কিডনি সম্পর্কে সচেতনতা খুব জরুরি।

যেকোনো সময়ই এই কিডনি সমস্যার সম্মুখীন হতে পারেন আপনি। তাই কিডনি রোগের উপসর্গগুলো সম্পর্কে স্বচ্ছ ধারণা থাকা প্রয়োজন। কিছু লক্ষণ কিডনি রোগের সংকেত বহন করে। যেমন: প্রস্রাব করার সময় জ্বালাপোড়া, ঘনঘন প্রস্রাব, প্রস্রাব লাল হওয়া, প্রস্রাবে দুর্গন্ধ, কোমরের দুই পাশে ও তলপেটে প্রচণ্ড ব্যথা, শরীর ও মুখে ফোলা ভাব ইত্যাদি। চিকিৎসাশাস্ত্রে, তিন মাসের চিকিৎসায় কিডনি রোগ ভালো না হলে এটিকে দীর্ঘস্থায়ী কিডনি রোগ হিসেবে ধরা হয়।

নিত্যপ্রয়োজনীয় দ্রব্যমূল্য লাগামহীনভাবে বৃদ্ধি

শরীরে এসব উপসর্গ দেখা দিলে দেরি না করে চিকিৎসকের শরণাপন্ন হওয়া উচিত। কিডনি সমস্যা সমাধানে চিকিৎসকরা প্রাথমিকভাবে ডায়ালিসিস করিয়ে থাকেন। সঠিক সময়ে রোগ ধরা না পড়লে এবং চিকিৎসা শুরু করা না গেলে কিডনি প্রতিস্থাপন ছাড়া আর উপায় থাকে না। তবে প্রাথমিক পর্যায়েই রোগ ধরা পড়লে কিডনি প্রতিস্থাপনের মতো ব্যয়বহুল চিকিৎসা এড়ানো সম্ভব।

কিডনি প্রতিস্থাপনের একটি বড় সমস্যা হলো প্রতিস্থাপনের জন্য কিডনির অপ্রতুলতা। অথচ একটি কিডনি দান করলে শরীরের কোনো ক্ষতি হয় না, যা অনেকেই জানে না। তাই এ বিষয়টিও সবার কাছে তুলে ধরা গুরুত্বপূর্ণ বলে মনে করেন বিশেষজ্ঞরা।

প্রতিবছর বাংলাদেশে অসংখ্য রোগী কিডনি সমস্যায় ভুগে থাকেন। কিডনি সমস্যা এড়াতে মদ বা সিগারেট থেকে দূরে থাকা, রাত না জাগা, ব্যথানাশক ওষুধ কম খাওয়া, খাবারে লবণের পরিমাণ কমানো, প্রস্রাব আটকে না রাখা এবং পর্যাপ্ত পানি পান করার ওপর জোর দেন চিকিৎসকরা।

দৈনিক সময়ের সংবাদ 

Please Share This Post in Your Social Media

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না।

এই বিভাগের আরো সংবাদ
দৈনিক সময়ের সংবাদ.কম প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Theme Customized BY NewsFresh.Com
WP Facebook Auto Publish Powered By : XYZScripts.com