1. [email protected] : editor :
বৃহস্পতিবার, ০৭ জুলাই ২০২২, ১১:২৩ অপরাহ্ন

৪ হাত ও ৪পা নিয়ে জন্ম নেয়া নবজাতকটির জন্য সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দিন

দৈনিক সময়ের সংবাদ অনলাইন
  • আপডেট : শনিবার, ৫ জুন, ২০২১
  • ২৮৮ দেখা হয়েছে

দিনাজপুরের বীরগঞ্জে ৪ হাত ও ৪পা নিয়ে জন্ম নেয়া নবজাতকটি এখন রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের শিশু সার্জারি ওয়ার্ডে চিকিৎসাধীন। হাসপাতালের চিকিৎসকরা আশাবাদী অপারেশনের মাধ্যমে নবজাতকের বাড়তি অঙ্গ অপসারণ করা সম্ভব। তবে এখনই নিশ্চিত করে কিছু বলতে পারছেনা না চিকিৎসকরা।

পরীক্ষা নিরীক্ষার রিপোর্ট এলেই নবজতকটি সর্ম্পকে পরবর্তী সিদ্ধান্ত নেয়া হবে বলে জানিয়েছেন হাসপাতালের শিশু সার্জারি ওয়ার্ডের প্রধান অধ্যাপক ডা. বাবলু কুমার সাহা। এদিকে নবজতকের দিন মজুর বাবা সন্তানের চিকিৎসার সাহায্যের জন্য সমাজের বিত্তবানদের সহযোগিতা কামানা করেছেন।

হাসপাতাল ও নবজাতকের বাবা সূত্রে জানা গেছে,  শুক্রবার ভোরে বীরগঞ্জ পৌরশহরের খানসমা রোডস্থ বীরগঞ্জ ক্লিনিকে নরমাল ডেলিভারিতে ৪ হাত ও ৪ পা বিশিষ্ট এক পুত্র সন্তানের জন্ম হয়েছে। কাহারোল উপজেলার মুকুন্দপুর ইউনিয়নের মুকন্দপুর গ্রামের দিনমুজুর মো. গোলাম রব্বানীর স্ত্রী রুনা লায়লা  স্বাভাবিকভাবেই সন্তান প্রসব করেন। অদ্ভুত শিশুটিকে প্রাথমিক ভাবে শিশু বিশেষজ্ঞ ডা. মনীন্দ্র নাথ রায়ের কাছে চিকিৎসার জন্য নিয়ে গেলে তিনি নবজাতককে উন্নত চিকিৎসার জন্য রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেয়ার পরামর্শ দেয়। শুক্রবার রাতে নবজাতককে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের ৫’ম তলার শিশু সার্জারি ওয়ার্ডে ভর্তি করা হয়। শনিবার সকালে বেশকিছু পরীক্ষা দেয়া হয়। পরীক্ষার রিপোর্ট হাতে এলে চিকিৎসকরা শিশুটির অপারেশনের বিষয়ে সিদ্ধান্ত নিবেন।

 

শিশু সার্জারি ওয়ার্ডের প্রধান ডা.বাবলু কুমার সাহা বলেন, নবজাতকের এই অঙ্গগুলোকে প্যারাসাইট, বাংলায় পরগাছা জাতীয় অঙ্গ বলে। অপারেশনের মাধ্যমে এগুলো অপসারণ করা সম্ভব। তবে এই ক্ষেত্রে পরগাছা অঙ্গগুলো দেহের কতটুকু গভীরে রয়েছে তা পরীক্ষার রিপোর্ট না এলে বুঝা যাবে না। তবে তিনি আশাবাদি অপারেশনের মাধ্যমে  ওই অঙ্গগুলো কেটে ফেলা সম্ভব। খুব জটিল না হলে রংপুরেই অপারেশন করা সম্ভব বলে তিনি জানান।

এদিকে নবজাতকের দিনমজুর বাবা বাবা গোলাম রব্বানী বলেন, আমি মানুষের জমিতে কামলার কাজ করে সংসার চালাই। কোনো জমি-জমা নেই। অপারেশন ও ওষুধপত্রের টাকা জোগার করা আমার পক্ষে কষ্টকর। তিনি সন্তানের চিকিৎসার জন্য সমাজের বিত্তবান ও সহৃদয় ব্যক্তিদের এগিয়ে আসার অনুরোধ জানান। সহায়তা পাঠানোর  জন্য বিকাশ ০১৩১৮-৯০৬৭২৮ নম্বরে যোগাযোগ করার জন্য অনুরোধ করা হয়েছে।

Please Share This Post in Your Social Media

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

এই বিভাগের আরো সংবাদ
 দৈনিক সময়ের সংবাদ.কম প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Theme Customized BY NewsFresh.Com
WP Facebook Auto Publish Powered By : XYZScripts.com