খালেদা-তারেক লন্ডনে বসে কি করছেন তার তদন্ত হওয়া দরকার : ওবায়দুল কাদের

2017-10-03_6_682444

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, বিএনপি চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়া ও তাঁর ছেলে তারেক রহমান লন্ডনে বসে কি ষড়যন্ত্র করছেন এর তদন্ত হওয়া প্রয়োজন।
তিনি আজ মঙ্গলবার বিকালে আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনার ধানমন্ডিস্থ রাজনৈতিক কার্যালয়ে এক যৌথসভা শেষে সংবাদ সম্মেলনে এ কথা বলেন।
ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘খালেদা জিয়া ও তাঁর বড় ছেলে লন্ডনে বসে কি ষড়যন্ত্রের জাল বুনছেন, তা জাতি জানতে চায়। এর তদন্ত হওয়া দরকার। তদন্তে সাহায্য করার জন্য স্কটল্যান্ড ইয়ার্ড, এমআই সিক্সসহ বৃটিশ গোয়েন্দা সংস্থাগুলোকে আমরা অনুরোধ করছি।’
আগামী ৭ অক্টোবর জাতিসংঘের সাধারণ পরিষদের ৭২তম অধিবেশন শেষে প্রধানমন্ত্রীর দেশে ফেরা উপলক্ষে গণসংবর্ধণা সফল করতে আওয়ামী লীগের সাথে সহযোগী ও ভ্রাতৃপ্রতিম সংগঠনের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক, ঢাকা মহানগর উত্তর ও দক্ষিণ আওয়ামী লীগের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক এবং ঢাকা মহানগরের সকল দলীয় সংসদ সদস্যদের সাথে এই যৌথ সভা অনুষ্ঠিত হয়।
প্রধান বিচারপ্রতিকে নিয়ে বিএনপি নেতাদের দেয়া বক্তব্যের জবাবে ওবায়দুল কাদের বলেন, যে দল থেকে এ অভিযোগ করা হচ্ছে সেই দলের নেত্রী কি কারণে এতদিন বিদেশে আছেন? অসুস্থতার কথাইতো বলেছিলেন। সময় ছিলো দুইমাস। এখন দুই মাস পেরিয়ে তিনমাস, তিনমাসের পরেও আরও কয়েকদিন। তিনি এখনও এলেন না।
তিনি বলেন, রোহিঙ্গা সংকটে আজকে সারা দুনিয়ায় আলোড়ন, সেই আলোড়ন বিএনপির চেয়ারপারসনের মধ্যে পেলাম না। সংকটের শুরু থেকে আজ পর্যন্ত আমাদের পার্টি, আমি নিজেই শেখ হাসিনার নির্দেশে রোহিঙ্গাদের মাঝে পড়ে আছি।
কাদের বলেন, লোক দেখানো ফটোসেশনের জন্য তাদের দলের কেউ কেউ গেলেন। আমি সেখানে ২০ দিন ছিলাম। আর মির্জা ফখরুল সাহেব গেলেন মাত্র একদিন। আর একদিন গিয়েও শুধু অভিযোগের কথা বলা। সারা দুনিয়া বলছে সরকার সফল, আর বিএনপি বলছে সরকার ব্যর্থ। দেশের জনগণ বলছে এ সংকটে সময়োচিত নেতৃত্ব দিয়েছেন বঙ্গবন্ধু কন্যা, কিন্তু এ প্রশংসা বিএনপি করতে পারেনি।
আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক বলেন, নেতিবাচক রাজনীতি করতে করতে বিএনপি যেভাবে বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়ছে আমার কাছে মনে হয় কখন যে লাইফ সাপোর্টে নিয়ে যেতে হয়। সেই অবস্থায় আসতে এ দলের আর বেশি বাকী নেই।

print

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*


*

x

Check Also

110

ঢাবির ‘গ’ ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষায় পাসের হার ১০.৯৮ শতাংশ

অফিসে আনুষ্ঠানিকভাবে এই ফলাফল প্রকাশ করেন। পরীক্ষার বিস্তারিত ফলাফল এবং ভর্তি প্রক্রিয়া সম্পর্কে বিশ্ববিদ্যালয়ের ওয়েবসাইট admission.eis.du.ac.bd জানা যাবে। এছাড়া DU GA লিখে রোল নম্বর লিখে ১৬৩২১ নম্বরে send করে ফিরতি SMS এ ভর্তিচ্ছুরা তার ফলাফল জানতে পারবে। পাসকৃত শিক্ষার্থীরা আগামী ১৯ সে‌প্টেম্বর হতে ১ অক্টোবর পর্যন্ত ভর্তি পরীক্ষার ওয়েবসাইটে পছন্দ তালিকা পূরণ করতে পারবে। এর আগে গত ১৪ সেপ্টেম্বর (শুক্রবার) ‘গ’ ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়। ওই দিন বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাস ও ক্যাম্পাসের বাইরের মোট ৫৪টি কেন্দ্রে ভর্তি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়। বাইরের কেন্দ্রগুলো হলো বিশ্ববিদ্যালয়ের লেদার ইঞ্জিনিয়ারিং অ্যান্ড টেকনোলজি ইনস্টিটিউ এবং বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয় স্কুল ও কলেজ। ‘গ’ ইউনিটের অধীনে আসন ...

110

ঢাবির ২০১৮-১৯ শিক্ষাবর্ষে ‘গ’ ইউনিটে ভর্তি পরীক্ষার ফলাফল জানবেন যেভাবে

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ২০১৮-১৯ শিক্ষাবর্ষে ব্যবসায় শিক্ষা অনুষদভুক্ত ‘গ’ ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষার ফল প্রকাশিত হয়েছে। ১৭ সেপ্টেম্বর বেলা ১১টায় দিকে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রশাসনিক ভবনের কেন্দ্রীয় ভর্তি অফিসে আনুষ্ঠানিকভাবে ফল ঘোষণা করেন উপাচার্য অধ্যাপক ড. আখতারুজ্জামান। এবার ‘গ’ ইউনিটে পাসের হার ১০ দশমিক ৯৮ ভাগ। চলুন জেনে নেওয়া যাক কিভাবে জানা যাবে এই ফলাফল… মোবাইল থেকে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের গ ইউনিটের ফলাফল দেখার পদ্ধতিঃ যেকোনো মোবাইল অপারেটর থেকে DU স্পেস দিয়ে GA স্পেস দিয়ে Roll Number টাইপ করে ১৬৩২১ নম্বরে সেন্ড করলে ফিরতি এসএমএস-এ ফলাফল জানতে পারবেন। অনলাইনে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের গ ইউনিটের ফলাফল দেখার পদ্ধতিঃ অনলাইনে ফলাফল দেখতে http://admission.eis.du.ac.bd ঠিকানায় আপনার উচ্চমাধ্যমিক পরীক্ষার রোল ...

Facebook Auto Publish Powered By : XYZScripts.com