ছবি ‘ব্যর্থ’, অর্থ ফেরত দিচ্ছেন সালমান!

imagesবরাবরের মতো এবারও ঈদে বক্স অফিস মাত করতে চেয়েছিলেন সালমান খান। কিন্তু সেই আশা পূরণ করতে ব্যর্থ হয়েছেন। কারণ তাঁর মুক্তিপ্রাপ্ত ছবি ‘টিউবলাইট’ তেমনভাবে জ্বলে উঠতে পারেনি।

গত ২৩ জুন মুক্তি পাওয়া কবির খান পরিচালিত ছবিটির জন্য পরিবেশকরা অগ্রিম বুকিং দিয়ে রেখেছিলেন। কিন্তু মুক্তি পাওয়ার পরই দর্শকদের হলমুখী করতে ব্যর্থ হয়। এতে পরিবেশকরা আর্থিক ক্ষতির সম্মুখীন হন। আর্থিক ক্ষতিগ্রস্ত পরিবেশকরা তাঁদের ক্ষতিপূরণ দাবি করে বসেন।

চলচ্চিত্র বাণিজ্যবিষয়ক বিশ্লেষক কোমল নাথা টুইটারে জানান, ‘পরিবেশকদের ক্ষতিপূরণের অর্থ ফেরত দিতে রাজি হয়েছেন সালমান খান।’

বলিউড হাঙ্গামা জানায়, সালমানের বাবা সেলিম খান মুম্বাইয়ের পরিবেশকদের সঙ্গে আলোচনা করে এ টাকা ফেরত দিতে সম্মত হয়েছিলেন। এর আগে সালমান পরিবেশকদের জুলাইয়ের শেষের দিকে ক্ষতিপূরণের টাকা দিতে চেয়েছিলেন। কিন্তু ওই সময় ‘টাইগার জিন্দা হ্যায়’ ছবির শুটিংয়ের জন্য দেশের বাইরে ছিলেন তিনি। সালমান খান শুটিং শেষে দেশে ফিরলেই মহারাষ্ট্রের এন এইচ স্টুডিওর পরিবেশক শ্রেয়ানস হিরওয়াতকে ৩২ দশমিক ৫ কোটি রুপি ফেরত দিচ্ছেন বলে শোনা যাচ্ছে।

print

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*


*

x

Check Also

dabang-1-700x336

 ‘দাবাং থ্রি’তে থাকছে সালমান-সোনাক্ষী

আগামীবছর আসছে  সালমান খান ও সোনাক্ষী সিনহা অভিনীত ‘দাবাং থ্রি’। ২০১০ সালে নির্মিত দাবাং ছবির সিকুয়েল এটি। গত সোমবার (১০ সেপ্টেম্বর) সিনেমাটির মুক্তির ৮ বছর পূর্তি উদযাপনে মুম্বাইতে ঘরোয়া পার্টিতে এক হয়েছিলেন ‘দাবাং’র পুরো ইউনিট। ছিলেন সালমান ও সোনাক্ষীও। তারা জানালেন আগামী বছরে মুক্তি পাবে ‘দাবাং থ্রি’। সালমান খান নিজের ইনস্ট্রাগ্রামে লেখেন, আজ ‘দাবাং’র আট বছর হলো। এত ভালবাসা দেওয়ার জন্য রাজ্জো ও চুলবুল পান্ডের পক্ষ থেকে আপনাদের ধন্যবাদ। দাবাং থ্রি নিয়ে দেখা হচ্ছে আগামী বছর। সালমান-সোনাক্ষী দু’জনই আলাদাভাবে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে পার্টির স্থিরচিত্র পোস্ট করে বিষয়টি জানিয়েছেন। দাবাং ও দাবাং টু সালমানের সঙ্গে সোনাক্ষীকে দেখা গেলেও তৃতীয় কিস্তিতে দেখা ...

4

চট্টগ্রাম চিড়িয়াখানায় বিরল সাদা বাঘ

একটি বিরল সাদা বাঘ জন্মেছে চট্টগ্রাম চিড়িয়াখানায়। বলা হচ্ছে এটিই দেশের প্রথম সাদা বাঘ। গত ১৯ জুলাই চট্টগ্রাম চিড়িয়াখানায় বেঙ্গল টাইগার দম্পতি রাজ ও পরির ঘরে এই শাবকটির জন্ম হয়। বন্য প্রাণী ও বাঘ বিশেষজ্ঞরা বলছেন, সাদার মধ্যে কালো রঙের ডোরাকাটা এ ধরনের বাঘের জন্ম খুবই বিরল ঘটনা। সাধারণ রয়েল বেঙ্গল টাইগারের গর্ভে এমন সাদা শাবক জন্মের কারণ ব্যাখ্যায় বিশেষজ্ঞরা বলছেন, হতে পারে প্রাচীনকালে এদের পূর্ব পুরুষ কেউ সাদা ছিল। জিনে প্রচ্ছন্নভাবে রয়ে এই বৈশিষ্ট্যে শাবকটির জন্মের মধ্য দিয়ে প্রকাশিত হয়েছে। রাজ ও পরি বাঘ দম্পতির ঘরে জন্ম নিয়েছিল তিনটি শাবক। এর মধ্যে একটি জন্মের পরদিন মারা যায়। মারা যাওয়া ...

Facebook Auto Publish Powered By : XYZScripts.com