সৌদি আরব ও ইসরাইলে যাচ্ছেন ট্রাম্প

trump
চলতি মাসে সৌদি আরব ও ইসরাইলে যাচ্ছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। মার্কিন প্রেসিডেন্ট হিসেবে এটাই তার প্রথম বিদেশ সফর। তবে এ সফরের মধ্যদিয়ে মধ্যপ্রাচ্যের জটিল কূটনৈতিক পরিস্থিতিতে ট্রাম্প নিজেকে জড়াবেন বলে বৃহস্পতিবার হোয়াইট হাউসের এক জ্যেষ্ঠ কর্মকর্তা জানিয়েছেন। মধ্যপ্রাচ্য দিয়ে শুরু করলেও এ সফরে ট্রাম্প ২৫ মে ব্রাসেলসে ন্যাটোর সম্মেলনে যোগ দেবেন। এরপর ২৬ মে সিসিলিতে জি-সেভেন সম্মেলনেও উপস্থিত হবেন। হোয়াইট হাউসের এক শীর্ষ কর্মকর্তা জানিয়েছেন, সফরের অংশ হিসেবে রোমে যাত্রা বিরতি করবেন ট্রাম্প। এসময় তিনি ভ্যাটিকানে পোপ ফ্রান্সিসের সঙ্গে সাক্ষাৎ করবেন। ধারণা করা হচ্ছে ২৪ মে এ বৈঠক অনুষ্ঠিত হতে পারে। মার্কিন সংবাদমাধ্যম পলিটিকো প্রথম এ খবর জানিয়েছে। গত সপ্তাহে এক সাক্ষাৎকারে ট্রাম্প দাবি করেছিলেন, যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে সৌদি আরব ন্যায্য আচরণ করছে না। সৌদিকে নিরাপত্তা দিতে গিয়ে যুক্তরাষ্ট্রকে অনেক অর্থ ব্যয় করতে হচ্ছে। এর আগে মার্চ মাসে সৌদি আরবের প্রভাবশালী যুবরাজ মোহাম্মদ বিন সালমান ওয়াশিংটনে ট্রাম্পের সঙ্গে বৈঠক করেন। সৌদি আরবের এক শীর্ষ উপদেষ্টা এই ঘটনাকে সৌদি-মার্কিন সম্পর্কের ক্ষেত্রে ঐতিহাসিক পট পরিবর্তন বলে আখ্যায়িত করেছেন। ফেব্রুয়ারিতে ইসরাইলের প্রধানমন্ত্রী বেনিয়ামিন নেতানিয়াহুর সঙ্গে হোয়াইট হাউসে বৈঠক করেন ট্রাম্প। ওই বৈঠকে পর ইসরাইল-ফিলিস্তিন শান্তি আলোচনায় মধ্যস্ততাকারীর ভূমিকা পালনের জন্য জামাতা জ্যারেড কুশনারকে নিয়োগ দেন ট্রাম্প। সর্বশেষ বুধবার হোয়াইট হাউসে ফিলিস্তিনি প্রেসিডেন্ট মাহমুদ আব্বাসের সঙ্গে বৈঠক করেছেন ট্রাম্প। বৈঠকে ইসরাইল-ফিলিস্তিন শান্তি আলোচনা নিয়ে আশাবাদ ব্যক্ত করলেও কোনো প্রক্রিয়ায় দীর্ঘদিন ধরে স্থিমিত প্রক্রিয়াটি শুরু হবে তা ব্যাখ্যা করেননি। সূত্র: রয়টার্স
print

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*


*

x

Check Also

wildfire-portugal

পর্তুগালে দাবানলে নিহতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৪১

পর্তুগালে ভয়াবহ দাবানলে নিহতের সংখ্যা বেড়ে ৪১-এ দাঁড়িয়েছে। এ পর্যন্ত ৭১ জন আহত হওয়ার খবর পাওয়া গেছে। এর মধ্যে ১৬ জনের অবস্থা আশঙ্কাজনক। পর্তুগালের সিভিল প্রটেকশন অ্যাজেন্সির মুখপাত্র প্যাট্রিসিয়া গাসপার এ তথ্য দিয়েছেন। গত রোববার থেকে পর্তুগালের ৫০০টির বেশি স্থানে ভয়াবহ দাবানল ছড়িয়ে পড়ে। প্রাণহানির ঘটনায় মঙ্গলবার থেকে তিন দিনের শোক ঘোষণা করা হয়। দাবানল নিয়ন্ত্রণে ব্যর্থতার বিষয়টি স্বীকার করে নিয়েছেন দেশটির প্রেসিডেন্ট।

মিয়ানমারের সংকটের দ্রুত সমাধানের ব্যাপারে আশাবাদী কফি আনান

  জাতিসংঘের সাবেক মহাসচিব কফি আনান মিয়ানমারের রাখাইন প্রদেশের জনগণের স্থায়ী শান্তি, নিরাপত্তা, সমৃদ্ধি, উন্নয়ন ও চলমান সংকটের দ্রুত সমাধানের ব্যাপারে আশাবাদী। তাঁর (আনান) কমিশন প্রণীত রিপোর্টের সুপারিশমালার উদ্ধৃতি দিয়ে কফি আনান বলেন, কমিশনের রিপোর্টে রোহিঙ্গাদের নাগরিকত্ব সম্পর্কে মিয়ানমার সরকারের ১৯৮২ সালে প্রণীত নাগরিকত্ব আইন আন্তর্জাতিক মান অনুযায়ী সংশোধনের বিষয়ে গুরুত্ব আরোপ করা হয়েছে। রোহিঙ্গা উদ্বাস্তুদের মর্যাদা ও নিরাপত্তার সাথে নিজ ভূমিতে প্রত্যাবর্তন, মানবিক সহায়তা ও মৌলিক চাহিদা নিশ্চিত করতেও কফি আনান তাঁর রিপোর্টে উল্লেখ করেন। তিনি বাংলাদেশের সাথে সীমান্ত নিরাপত্তা ও দ্বিপাক্ষিক ক্ষেত্রে সহযোগিতা রক্ষা করার বিষয়ে জোর দিয়ে বলেন এই সুসম্পর্ক ও সহযোগিতার মাধ্যমে উভয় দেশই লাভবান হবে। ...

Facebook Auto Publish Powered By : XYZScripts.com